কবি আল মাহমুদের কবিতা

কবি আল মাহমুদের কবিতাঃ আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম খুব সুন্দর ও মজার কবি আল মাহমুদের কবিতা । আশা করছি আপনাদের কাছে অনেক ভালো লাগবে।                                                                                                                                            READ MORE>>> জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম

কবি আল মাহমুদের কবিতা

পাখির মতো

পাখির মতো

আম্মা বলেন, পড়রে সোনা
আব্বা বলেন, মন দে ,
পাঠে আমার মন বসে না
কাঁঠালচাঁপার গন্ধে !!

আমার কেবল ইচ্ছে জাগে
নদীর কাছে থাকতে,
বকুল ডালে লুকিয়ে থেকে
পাখির মতো ডাকতে !!

সবাই যখন ঘুমিয়ে পড়ে
কর্ণফুলীর কূলটায়,
দুধভরা ঐ চাঁদের বাটি
ফেরেস্তারা উল্টায় !!

তখন কেবল ভাবতে থাকি
কেমন করে উড়বো,
কেমন করে শহর ছেড়ে
সবুজ গাঁয়ে ঘুরবো !!

তোমরা যখন শিখছো পড়া
মানুষ হওয়ার জন্য,
আমি না হয় পাখিই হবো,
পাখির মতো বন্য !!!!

কবি আল মাহমুদের কবিতা

কবি আল মাহমুদের কবিতা

হায়রে মানুষ

একটু ছিল বয়স যখন ছোট্র ছিলাম আমি
আমার কাছে খেলাই ছিল কাজের চেয়ে দামি !!
উঠোন জুড়ে ফুল ফুটেছে আকাশ ভরা তারা
তারার দেশে উড়তো আমার পরাণ আত্মহারা !!

জোছনা রাতে বুড়িগঙ্গা তুলতো যখন ঢেউ
আমার পিঠে পরীর ডানা পরিয়ে দিতো কেউ !!
দেহ থাকতো এই শহরে উড়াল দিতো মন
মেঘের ছিটার ঝিলিক পেয়ে হাসতো দু নয়ন !!

তারায় তারায় হাঁটতো আমার ব্যাকুল দুটি পা
নীল চাঁদোয়ার দেশে হঠাৎ রাত ফুরাতো না !!
খেলার সাথী ছিল তখন প্রজাপতির ঝাঁক
বনভাদালির গন্ধে কত কুটকুটোতো নাক !!

কেওড়া ফুলের ঝোল খেয়ে যে কোল ছেড়েছে মার
তার কি থাকে ঘরবাড়ি না তার থাকে সংসার?
তারপর যে কী হলো, এক দৈত্য এসে কবে
পাখনা দুটো ভেঙে বলে মানুষ হতে হবে !!

মানুষ হওয়ার জন্য কত পার হয়েছি সিঁড়ি
গাধার মত বই গিলেছি স্বাদ যে কি বিচ্ছিরি !!
জ্ঞানের গ্লাস পান করে আজ চুল হয়েছে শণ
কেশের বাহার বিরল হয়ে উজাড় হলো বন !!

মানুষ মানুষ করে যারা মানুষ তারা কে?
অফিস বাড়ির মধ্যে রোবোট কলম ধরেছে !!
নরম গদি কোশন আসন চশমা পরা চোখ
লোক ঠকানো হিসেব লেখে, কম্প্যুটারে শ্লোক !!

বাংলাদেশের কপাল পোড়ে ঘূর্ণিঝড়ে চর
মানুষ গড়ার শাসন দেখে বুক কাঁপে থরথর !!
হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস-গান শোননি ভাই ?
মানুষ হবার ইচ্ছে আমার এক্কেবারে নাই !!!!

না ঘুমানোর দল

না ঘুমানোর দল

নারকেলের ঐ লম্বা মাথায়
হঠাৎ দেখি কাল
ডাবের মতো চাঁদ উঠেছে
ঠান্ডা ও গোলগাল !!

ছিটকিনিটা আস্তে খুলে
পেরিয়ে এলেম ঘর
ঘুমন্ত এই মস্ত শহর
করছিলো থরথর !!

মিনারটাকে দেখছি যেন
দাড়িয়ে আছেন কেউ,
পাথরঘাটার গির্জেটা কি
লাল পাথরের ঢেউ ?

চৌকিদারের হাক শুনে যেই
মোড় ফিরেছি বায়-
কোথেকে এক উটকো পাহাড়
ডাক দিলো আয় আয় !!

.পাহাড়টাকে হাত বুলিয়ে
লাল দিঘীটার পাড়
এগিয়ে দেখি জোনাকিদের
বসেছে দরবার !!

আমায় দেখে কলকলিয়ে
দীঘির কালো জল
বললো, এসো, আমরা সবাই
না ঘুমানোর দল-

পকেট থেকে খুলো তোমার
পদ্য লেখার ভাজ
রক্তজবার ঝোপের কাছে
কাব্য হবে আজ !!

দীঘির কথায় উঠলো হেসে
ফুল পাখিদের সব
কাব্য হবে, কাব্য হবে-
জুড়লো কলরব !!

কী আর করি পকেট থেকে
খুলে ছড়ার বই
পাখির কাছে, ফুলের কাছে
মনের কথা কই !!!!

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
error: Content is protected !!