বিরহের কবিতা

বিরহের কবিতা আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম অনেক সুন্দর সুন্দর বিরহের কবিতা । আশা করছি আপনাদের অনেক ভালো লাগবে । Read more>>> বন্ধু নিয়ে কবিতা

বিরহের কবিতা

আমাকে কষ্ট দিতে চাও দাও !
আমি কষ্ট নিতেই এসেছি
আমাকে কাঁদাতে চাও কাঁদাও !
আমি কাঁদতেই এসেছি ।

আমাকে হারাতে চাও হারাও!
আমি হারতেই এসেছি ।
আমাকে সাগরে ভাসাতে চাও ভাসাও !
আমি ভাসতেই এসেছি ।

বিরহের কবিতা

কেউ জানে না আমার কেন এমন হলো
কেন আমার দিন কাটে না রাত কাটে না
রাত কাটে তো ভোর দেখি না !

পেচন থেকে কেউ বলেনি করুন পথিক
দুপুর রোদে গাছের নিচে একটু বসে জিরিয়ে নিও !
কেই বলেনি ভালো থেকো সুখেই থেকো
যুগল চোখে জলের ভাষায় আসার সময়
কেউ বলেনি মাথার কসম আবার এসো !

বললো না কেউ তরুন তাপস এই নে চারু !
আমিও ঠিক তেমনি করে সভ্যতা আর শ্রভ্রতাকে
বুকে নিয়েই দুঃসময়ে এতোটা পথ একলা এলাম
কেউ ডাকেনি তবুও এলাম ভালবাসি বলতে এলাম !

আমি ভালবাসি কথাটি বলেও বুঝাতি পারিনি 
মনের গহীনে জায়গা কিনতে চেয়েও কিনতে পারিনি ”
কোন অধিকার নেই ভালবাসার !

আমি হিয়ালির বিষয়বস্তু
আমি উপহাসের বিলাস সামগ্রী,
হৃদয়কে ছুঁতে পারিনা কখনো !

তবে কোন একদিন বলেছিলে,
পথিক তোমার ঠিকানা কোথায় ভুলিনি !
শীতের কুয়াশায় মেঠ পথ পাড়ি দেওয়া

বর্ষায় কাদা জলে কদম,
চৈত্রের দুপুরে আমের মুকুল,
সবই এনেছি তোমার জন্যে !
কিন্তু মনের ভাষা বুঝেনা
বোঝার ভান করছো !

তুমি কখনো আমার অভাবে কাঁদনি !
কখনো একান্তে ডাকনি,
তাই কখনো তোমার ভাবনায় আসিনি !
এক অজানা পৃথিবীর এই অজানা প্রাণী !
তোমাকে ভুলতে চেয়ে আরো বেশি 
ভালবেসে ফেলি !

তোমাকে ছাড়াতে গিয়ে আরো বেশি গভীরে জড়াই ।
যতোই তোমাকে ছেড়ে যেতে চাই দুরে
ততোই তোমার হাতে বন্দি হয়ে পড়ি !
তোমাকে এড়াতে গেলে এভাবেই আষ্টেপিষ্টে
বাধা পড়ে যাই !
এভাবেই সর্ম্পূন আড়ষ্ট হয়ে পড়ি ,

তোমাকে ছাড়াতে গেলেে আরো 
ক্রমশ জড়িয়ে যাই আমি !
আমার কিছুই আর করার থাকে না ।
তুমি এভাবেই বেধে ফেল যদি দুরে যেতে চাই !
এমন সাধ্য কি আছে তোমার চোখের 
সামান্য আড়াল হই ।

দুই হাত দূরে যাই 
যেখানেই যেতে চাই সেখানেই
বিছিয়ে রেখেছ ডাল পালা !
তোমাকে কি অতিক্রম করা কখনো সম্ভব ।
তোমাকে ভুলতে চেয়ে আরো বেশি
ভালবেসে ফেলি !

তোমাকে ঠেলতে গিয়ে দূরে 
আরো বেশি কাছে টেনে নিই ।
যতই তোমার কাছ থেকে আমি
দূরে যেতে চাই ততোই মিশে যাই
নিঃশ্বাসে প্রশ্বাসে !

একা একা কথা বলা
স্বপ্নের খোজে পথ চলা !
মানে অভিমানে গিয়েছি ভুলে ,
সেই সব রোদেলা দিন !
পেরিয়ে এসেছি পিছে ফেলে ,
ইচ্ছের রঙিন ঘুড়ি
উড়িয়েছিলাম সেই কবে ?
কোন কিশোরী বেলায় ?

কবেই গিয়েছি সব ভুলে
সে সব নিয়েছি ঠাই !
স্মৃতির কোন কোনায় ?
ভোরের কুয়াশায় উত্তরের হাওয়ায়,

বিষন্নতায় পথ হেটেছি একা
তবুও চাইনি তোমার দেখা,
কত রাত গিয়েছে চলে
আজ বড় অবহেলায় তুমি এলে !

বন্ধু দুয়ার খিল দিয়েছি তুলে
বন্ধ মনেরই অলিগলি,
আমি নিজেকে নিয়েছি খুঁজে 
আর তাই একলাই পথ চলি !

প্রিয়ার চোখে চোখ রাখা মানে প্রেমে পড়া
প্রেমের সাগরে ডুবে হলাম আমি দিশেহারা !
দূরে যাওয়া মানে প্রেমের সুতোয় টান পড়া,
ভালবাসাহীন জীবনটাকে পথ চলার সঙ্গী করা !

ভুলে যাওয়া মানে স্মৃতি থেকে মুছে ফেলা
চেনা পথ ভুলে একা অজানার পথে পথচলা !
না পাওয়ার স্মৃতি মনে করা মানে কষ্ট পাওয়া !

পথ চলতে চলতে কি জানি কি
কথা ভেবে থমকে দাড়িয়ে গেলাম !
রাতে ঘুমাতে ঘুমাতে কি জানি কি
স্বপ্ন দেখে এ বুকে ব্যাথাই পেলাম !

তোমায় ভেবে মনের অজান্তেই
আমার দুচোখে পানি আসে
আমি ভুলে গেলেও এ মনটা তোমাকে আজ
যে তোমাকে কত ভালবাসে !

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!