যে জন দিবসে মনের হরষে জ্বালায় মোমের বাতি ভাবসম্প্রসারণ

যে জন দিবসে মনের হরষে জ্বালায় মোমের বাতি ভাবসম্প্রসারণ
আশু গৃহে তার দেখিবে না আর
নিশীথে প্রদীপ ভাতি

মূলভাবঃ অপব্যয় মানবজীবনে মারাত্মক পরিণতি ডেকে আনে। সুসময়ে নিজের খেয়াল খুশিমতো ধন-সম্পদ ব্যয় করলে প্রয়োজনের সময় তার অভাব দেখা দেয়।

ভাবসম্প্রসারণঃ রাতের অন্ধকারকে দূর করার জন্য যখন আলোর দরকার হয়, তখন মোমবাতি দিয়ে তা নিশ্চিত করা হয়। কিন্তু সূর্য ‍দিনের বেলায় পৃথিবীকে আলোতে ভরিয়ে রাখে। তখন আমাদের আলোর ঘাটতি হয় না। অথচ এ সময় কেউ যদি আনন্দের আতিশয্যে আলো জ্বালায় তবে তা নিঃসন্দেহে অপব্যয়। আর এরূপ অপব্যয়ের ফল খুবই ভয়ঙ্কর। বর্তমানে আমাদের সমাজে এমন এক শ্রেণীর লোক আছে যারা অবিবেচকের মতো অপব্যয় করে থাকে। ধনের গর্বে গর্বিত এসব লোক টাকাকে তুচ্ছ মনে করে খরচ করে। তারা তাদের শখ পূরনের জন্য যে কোনো কাজ করতে প্রস্তুত থাকে। তাদের বিলাসিতা এতই ব্যাপক যে, অপব্যয়কে তারা অপচয় মনে না করে বরং গর্ব অনুভব করে। আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ- ধরনের এসব লোক সমাজে নিজেদের অবস্থানকে বেশিদিন ধরে রাখতে পারে না।

খুব সামান্য সময়ের ব্যবধানেই তারা দারিদ্রতার শিকার হয়। মাত্রাতিরিক্ত অপব্যয়ের কারণে নিতান্ত প্রয়োজনেও তারা অভাব মেটাতে না পেরে নিজেদের কৃতকর্মের জন্য অনুতাপের আগুনে দগ্ধ হয়। পবিত্র কোরআনে এদেরকে বলা হয়েছে, শয়তানের ভাই।’ তাই অপব্যয় সম্পূর্ণভাবে বর্জন করা উচিত।

মন্তব্যঃ মিতব্যয়ী ও সঞ্চয়ী লোকেরা কখনো বিপদে পড়ে না। জীবনকে সুন্দরভাবে সাজানো আর আনন্দময় ভুবন গড়ার জন্য প্রত্যেকেরই মিতব্যয়ী হওয়া প্রয়োজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x
error: Content is protected !!