ভোগে নয়, ত্যাগেই মনুষ্যত্বের বিকাশ ভাবসম্প্রসারণ

ভোগে নয়, ত্যাগেই মনুষ্যত্বের বিকাশ ভাবসম্প্রসারণ

মূলভাবঃ মনুষ্যত্বই মানুষের মহাপরিচালক । আর ত্যাগের মহিমাই পারে মানুষের এ মনুষ্যত্বের উৎকর্ষ ও বিকাশ ঘটাতে । ত্যাগের মাধ্যমে সম্পদ চলে যায়, ফিরে আসে আনন্দ ভ্রাতৃত্ব আর মনুষ্যত্ব । ত্যাগের মধ্যেই মানব জীবনের স্বার্থকতা, ত্যাগেই মানুষের একমাত্র আদর্শ হওয়া উচিত ।

সম্প্রসারিত-ভাবঃ জগৎসংসারে ভোগ ও ত্যাগ দুটি বিপরীতমুখী দিক। ভোগ ও ত্যাগের দরজা সবার জন্যেই উন্মুক্ত । মানুষ ভোগে আনন্দ পায়, তৃপ্তি পায় না। কিন্তুূ ত্যাগের মাধ্যমে আনন্দ ও তৃপ্তি দুটো লাভ করা যায় । তাই ভোগ নয় ত্যাগেই জীবনের লক্ষ্য হওয়া বাঞ্চনীয়। ত্যাগ মনুষ্যত্বকে বিকোশিত করে । মনুষ্যত্বের কল্যাণেই মানুষ অন্যান্য প্রাণী থেকে আলাদা এবং শ্রেষ্ঠ। শুধু মানুষ হিসেবে জন্ম নিলেই মনুষ্যত্ব লাভ করা যায় না । মানুষকে তার স্বীয় চেষ্টায় এই মনুষ্যত্বের বিকাশ ঘটাতে হয়। মনুষ্যত্বের বিকাশ ঘটানোর মধ্যেই মানব জীবনের স্বার্থকতা । ভোগের মাধ্যমে মনুষ্যত্বের বিকাশ ঘটে না । ভোগ মানুষকে জড়িয়ে ফেলে পঙ্গিলতা, গ্লানি ও কালিমার সাথে । তাদের অর্জিত সম্পদ নিজের স্বার্থ ব্যতিত সমাজের অন্য কোন কাজে আসে না । তাই পরের দুঃখে তাদের হৃদয় মন ও কাঁদে না । তারা স্বার্থান্ধ ও সংকীর্ণচিত্ত বলে সমাজে মর্যাদাহীন ।

ত্যাগ মানুষকে নিয়ে যায় মনুষ্যত্বের র্স্বণ শিখরে । পরের কল্যাণে নিজেকে উৎসর্গ করার আদর্শ ও উদ্দেশ্য মনুষ্যত্বের মধ্যেই অবহ্যত থাকে । মনুষ্যত্বের গুণে মানুষ নিজের স্বার্থের কথা ভুলে গিয়ে পরার্থে, দীনদুঃখীদের জন্যে নিজেকে বিলিয়ে দিয়ে আনন্দ পায় । স্বামী বিবেকানন্দ, মাদার তেরেসা প্রমুখ ব্যাক্তিদের চরিত্রত্যাগের এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত । ত্যাগের মাধ্যমেই তাঁদের মনুষ্যত্ব তথা মানবীক গুণাবলী ফুটে উঠেছে । মানুষই পারে বিপদ আপদে মানুষের কাছে গিয়ে দাড়াতে । মানুষতো একের অন্যের ভাই, বন্ধু তবে কেন তারা একই রক্তে মাংসে গড়া নিজ নিজ অসহায় গস্থ্য মানুষের সাহায্যে এগিয়ে না আসে । এক কেমন যুক্তি এ কেমন বিবেক । মানুষতো মানুষের জন্য । নিজেকে অন্যের জন্যে বিলিয়ে দেওয়াকে মনুষ্যত্ব বলে । মানুষ কি শুধু নিজে খেয়ে পড়ে বেচেঁ থাকলে কি এতেই স্বার্থকতা এইটা কিন্তুূ সঠিক পথ না । মানুষের ও কিন্তুূ মানুষের জন্যে দায়ীত্ব আছে আর তা পালন করা সকল মানব জাতির দ্বায়ীত্ব ও কর্তব্য । ত্যাগের মহীমাই মানুষ মানুষের মনে সারা জীবনের জন্য বেঁচে থাকতে পারে হয়ে উঠতে পারে সকলের জন্য উমর ।

মন্তব্যঃ এ জীবনের পরম শান্তি দেবে আর নেবে মিলাবে মিলিবে’র মধ্যে নিহিত । আমি অট্রালিকায় বসবাসকারী আমার অন্য কোন ভাইকে দেখে আমার নির্দ্বিধায় বলা উচিত, আমার ঔ ঘরে ছিল তোমারও দাবী। মহান ইসলাম ধর্মেও ঔ একই কথা বলে, ধনীদের ধনসম্পদে গরীবদের হক রয়েছে। গরীবদের হকের কথা ইসলামের সকল ক্ষেত্রে অনেক জোর আরপ করে বলা হয়েছে অনেক গুরুত্ব সহকারে যাতে করে আমরা ব্যপারটাকে গুরুত্ব দিও ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
error: Content is protected !!