জীবনানন্দ দাশের কবিতা

জীবনানন্দ দাশের কবিতাঃ আপনাদের জন্য নিয়ে এলাম অসাধারণ কবি জীবনানন্দ দাশের কবিতা। আশা করছি আপনাদের কাছে পড়ে অনেক ভালো লাগবে।                  আরো পড়ুন>>> ছোটদের ছড়া কবিতা

জীবনানন্দ দাশের কবিতা

জীবনানন্দদাশের কবিতা

জীবনানন্দ দাশ

আমি কবি-সেই কবি

জীবনানন্দ দাশের কবিতা

আকাশে কাতর আখিঁ হেরি ঝরা পালকের ছবি
আনমনা আমি চেয়ে থাকি দূর হিঙুল-মেঘের পানে,,,,
মৌন নীলের ইশারায় কোন কামনা জাগিয়ে প্রাণে
বুকের বাদল উথলি উঠিয়ে কোন কাজরীর গানে !!”””

দাদুরী -কাঁদানো শাঙন-দরিয়া হৃদয়ে উঠিছে দ্রবি ,,,,
স্বপন-সুরার ঘোরে, আখের ভুলিয়া আপনারে
আমি রেখেছি দিওয়ানা করে !!”””

জন্ম ভরিয়া সে কোন হেঁয়ালি হল না আমার সাধা
পায় পায় নাচে জিঞ্জির হায়, পথে পথে ধায় ধাঁধা !!”””
নিমেষে পাসরি এই বসুধার নিয়তি মানার বাধা
সারাটি জীবন খেয়ালের খোশে পেয়ালা রেখেছি ভ’রে !!”””

ভুঁয়ের চাঁপাটি চুমি, শিশুর মতন,,,,,
শিরীষের বুকে নীরবে পড়ি গো নুমি !!”””
ঝাউয়ের কাননে মিঠা মাঠে মাঠে মটর-ক্ষেতের শেষে,
তোতার মতন চকিতে কখন আমি আমি আসিয়াছি ভেসে ,,,,

ভাটিয়াল সুর সাঁঝের আধাঁরে দরিয়ার পরে মেশে
বালুর ফরাশে ঢালু নদীটির জলে ধোঁয়া ওঠে ধূমি !!
বিজন তারার সাজে, আমার প্রিয়ের গজল-গানের রেওয়াজ বুঝি বা বাজে !!”””

প’ড়ে আছে হেথা ছিন্ন নীবার , পাখির নষ্ট নীড় !!””
হেথায় বেদনা মা হারা শিশুর, শুধু বিধবার ভিড়া !!””
কোন যেন এক সূদুর আকাশ গোধুলিলোকের তীর
কাজের বেলায় ডাকিছে আমারে, ডাকে অকাজের মাঝে !!”””

জীবনানন্দ দাশের কবিতা

জীবনানন্দ দাশ

সিন্ধু

বুকে তব সুরপরী বিরহবিধুর
গেয়ে যায়, হে জলধি, মায়ার মুকুর !!””

কোন দূর আকাশের ময়ূর -নীলিমা
তোমরে উতলা করে !!”” বালুচরসীমা
উলঙ্ঘি তুলিছ তাই শিরোপা তোমার,,,,
উচ্ছৃঙ্খল অট্রহাসি-তরঙ্গের বাঁকা তলোয়ার !!””

গলে মৃগতৃষাবিষ, মারির আগল
তোমার সুরার স্পর্শে আশেক-পাগল !!””

উদ্যত উর্মির বুকে অরুপের ছবি
হে দুন্দুভি দুর্জয়ের, দুরন্ত, আগধ !!””

পেয়েছি শক্তির তৃপ্তি, বিজয়ের স্বাদ
তোমার উলঙ্গনীল তরঙ্গের গানে !!””

জীবনানন্দ দাশ

অনেক আকাশ

জীবনানন্দ দাশ

গানের সুরের মতো বিকালের দিকের বাতাসে
পৃথিবীর পথ ছেড়ে-সন্ধার মেঘের রঙ খুঁজে
হৃদয় ভাসিয়া যায়-সেখানে সে কারে ভালোবাসে !!””

পাখির মতন কেপে-ডানা মেলে-হিম চোখ বুজে !!””
অধীর পাতার মতো পৃথিবীর মাঠের সবুজে
উড়ে উড়ে ঘর ছেড়ে কত দিকে গিয়েছে সে ভেসে !!””

জীবনানন্দ দাশ

মেঠো চাঁদ

মেঠো চাঁদ রয়েছে তাকায়ে
আমার মুখের দিকে, ডাইনে আর বাঁয়ে
পোড়ো জমি-খড়-নাড়া-মাঠের ফাটল,
শিশিরের জল !!”””

মেঠো চাঁদ কাস্তের মত বাঁকা, চোখা
চেয়ে আছে , এমনি সে তাকায়েছে কতো রাত,,,
নাই লেখা যোখা !!!!

মেঠো চাঁদ বলেঃ
আকাশের তলে, খেতে খেতে লাঙ্গলের ধার
মুচে গেছে ফসল কাটার ,,,,,,
সময় আসিয়া গেছে,, তুমি কেন তবে
রয়েছো দাড়িয়া “”””একা একা ডাইনে আর বাঁয়ে

জীবনানন্দ দাশ

শহর

হৃদয়, অনেক বড়ো বড়ো শহর দেখেছো তুমি
সেই সব শহরের ইট পাথর,,,,
কথা, কাজ, আশা, নিরাশার হৃত চক্ষু
আমার মনের বিষাদের ভেতর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে !!”””

কিন্তুূ শহরের বিপুল মেঘের কিনারে সূর্য উঠতে দেখেছি
মেঘের কমলা রঙের মেঘের ভিতর প্রনয়ী
চাষার মতো বোঝা রয়েছে তার ;

শহরের গ্যাসের আলো ও উঁচু-উঁচু মিনারের
ওপরেও দেখেছি নক্ষত্রেরা,,,
অজস্র বুনো হাঁসের মতো কোন দক্ষিণ সমুদ্রের
দিকে উড়ে চলেছে !!””””

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x
error: Content is protected !!