অস্থির প্রেমের গল্প

এখানে একটি সুন্দর প্রেমের গল্প দেয়া হলো । আশাকরি গল্পটি পড়ে অনেক মজা পাবেন। তো দেখা যাক গল্পো টি কেমন।

অস্থির প্রেমের গল্প

গল্পটা হয়তো একটু ভিন্ন আমার কাছে মনে হয়েছে সবাইর কাছে গল্প আর কাহিনীটা দেখলে আশা করছি আরো অনেক বেশী মজা লাগবে । আমি আপনাদের জন্য অনেক ভিন্ন ভিন্ন প্রেমের গল্প নিয়ে হাজির হবো !!!অস্থির প্রেমের গল্পগল্পের শুরুতে আমি আমার পরিচয় দিচ্ছি ‘’ আমি তসিফ..পুরো নাম তসিফ বিন কবির ’’’ কবির আমার বাবার নাম. আমার বাবা কলেজের শিক্ষক . আমার মা গৃহিনী । মা সারাটা দিন রান্না বান্না করে যা সাধারণত মহিলাদের কাজ হয় ।

বাবা শিক্ষক বলে যা হয় আমার উপর ছিল ছোট কাল থেকে পড়াশুনার বাড়তি প্রেশার যা অন্য সহপাটিদের থেকে ভিন্ন । আমি ভার্সিটি পড়ুয়া ছাত্র ।

এক কথায় এই সময়টা সব ছেলে মেয়ের জন্য অস্থির একটা মুর্হূত পার করতে হয় যেমন – অস্থিরতা , অনুভতি , ভাবনা , ভালো লাগা ইত্যাদি সব মিলিয়ে বলতে পারেন ““ অস্থির প্রেমের গল্প ‘’’’  .. 

যেখান থেকে বলতে চেয়েছিলাম সব সময়ের মতো ভার্সিটি গেলাম আজও সাথে আমার জিগরী দোস্ত ‍আদনান . আদনান আমার জন্য রোজ উপেক্ষা করে ভার্সিটি গেটের পাশে দাড়িয়ে ; আমি যতক্ষণ না কলেজ গেটে আসবো আদনান ভার্সিটি প্রবেশ করে না বলা যায় ।

আদনান আমার অনেক বিশ্বস্ত বন্ধ । আমি তাকে অনেক পচন্দ করি যদিও আমি তা আদনান কে বুঝতে দিনা । একটা ভালো বন্ধু যেমন হওয়া দরকার আদনান ঠিক তেমনি । আমি অনেক লাকি আদনান এর মত বন্ধ পেয়েছি । যাই হোক আমি মনে হচ্ছে একটু বেশী আদনানের সুনাম করে ফেললাম !!!

যাই হোক আমার প্রেমের শুরুটা একটু ভিন্ন ,,, ‘‘মনালিসা,, সেই শিল্পের তুলিতে আঁকা ফ্রেমে আমরা যাকে মনালিসা হিসেবে জেনেছি আমার প্রেমিকা ছিল তাঁর চেয়ে অনেক সুন্দর অপরূপা এক কথায় অসাধারণ দেখতে ..প্রথম দিন যখন ভার্সিটি ক্যাম্পাসে ওকে দেখলাম কোথায় যেন হারিয়ে গেলাম ।

নাম তাঁর নিলান্জনা !!!  জিনা তাঁর নাম নিলান্জনা ছিল না তাঁর নাম ছিল নিলা । নিল আকাশের মত ছিল তাঁর মন । নিলার মন সত্যি অনেক ভালো ছিল । সব সময় নিলা বন্ধদের কে বিভিন্ন ভাবে সাহায্য করতো এই ধরো পড়াশোনার ক্ষেত্রে বিভিন্ন নোট বুক নোট খাতা ইত্যাদি আর কেউ কখনো টাকার সমস্যায় থাকলে সেটাও নিলা সমাধান করতো নিজের বেনিটি ব্যাগ থেকে টাকা বের করে ।

যাই হোক এইটুকু শুনে এইটা বুঝতেই পারছেন যে নিলা তা হলে আমাকে না জানি কতো ভালোবাসে !!!!! বাকি গল্পটা ““ অস্থির প্রেমের গল্প  (২) ও শেষ পর্বে বলবো । দেখতে বুলবেন না কিন্তু   !!!!!!!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!