যাহা চাই তাহা ভুল করে চাই যাহা পাই তাহা চাই না ভাবসম্প্রসারণ

যাহা চাই তাহা ভুল করে চাই যাহা পাই তাহা চাই না ভাবসম্প্রসারণ

 

মূলভাবঃ মানুষের চাহিদা বা আকাঙ্খা অসীম। একটি চাহিদা শেষ হওয়া মাত্রই আরেকটি নতুন চাহিদার সৃষ্টি হয়। এই অসীম চাহিদার কারনেই মানুষ কখনো আত্মতৃপ্ত হতে পারে না।

সম্প্রসারিত-ভাবঃ মানুষের আশা আকাঙ্খা সীমাহীন। তার চাওয়া পাওয়ার কোন শেষ নেই। মানুষ যখন যা চায় , সেটিই যে তার একমাত্র কাম্যবস্তুূ তা কিন্তুূ নয়। সে যে সত্যিকারের কি চায়, কী তার কাম্য সে সর্ম্পকে সে সবসময় সঠিক তথ্য দিতে পারে না। তাই মানুষ তার কাম্যবস্তুূর প্রাপ্তির দ্বারা কোন সময়ই পূর্ণ পরিতৃপ্ত নয়। একটা অতৃপ্তির বেদনা সারাক্ষণ তার মনের মধ্যে বিরাজ করে। কারণ, একবার মানুষ যা চায় তা পাওয়া হয়ে গেলে নতুন করে আরো কিছু পাওয়ার আকাঙ্খা জাগে। অজানাকে জানার এবং অচেনাকে চেনার প্রতি মানুষের যেমন আগ্রহের শেষ নেই, তেমনি না পাওয়াকে পাওয়ার জন্যে তার উগ্র কামনারও কোন পূর্ণ পরিতৃপ্তি নেই। কামনার মোহে আকৃষ্ট ও বশবর্তী হয়েই মানুষ তার কাম্যবস্তুূকে লাভ করে, তখনই তার মোহ কেটে যায়। প্রাপ্ত বস্তুূকে তার প্রার্থিব বলে মনে হয় না। পরমুহূর্তেই আবার তার সহজাত প্রবৃত্তির বশে নতুন করে কোন প্রাপ্তির আশায় হন্যে হয়ে উঠে। কামনা পূরণের কৃচ্ছসাধনায় ভুলের সাগরে নিমজ্জিত হয়।

প্রকৃতপক্ষে, চাওয়া পাওয়ার এ জীবনে মানুষ যা চায় তা পাওয়ার পর তার কাছে মনে হয়, সে যেন ভুল করেই চেয়েছিল এবং যা চাওয়া হয় তার প্রাপ্যতা শেষেও তার একই রকম অনুভূতি জাগে। মূলত মানুষের অসীম চাহিদার কারনেই তার সমস্ত চাওয়া পাওয়াকে ভুল মনে হয়। আসলে যা ভুল নয়- এটা মানুষেই সহজাত প্রবৃত্তি। চাওয়ার যেমন তার শেষ নেই, তেমনি পাওয়ার ও শেষ নেই। তাই ক্যালভিন ওরেনের উক্তিটি স্মরণযোগ্য।

“ মানবজীবন চিরদিনই সুখ শান্তিতে কাটে না। আকাশের দিকে হাত বাড়ায়ে শূন্যতা ছাড়া আর কিছুই পাওয়া যায়না। চাওয়া পাওয়ার গন্ডি তাই মাটির কাছাকাছি হওয়া ভাল।”

মন্তব্যঃ মানবমনের এ পাওয়া না পাওয়ার দ্বন্দ্ব চিরন্তন। অবিরাম ও অব্যাহত এর গতি। তাই কবি গোলাম মোস্তফা বলেছেন,

“ কিন্তুূ হায়, এমনি পাওয়ায় / ভরিতে চাহেনা প্রাণ যত পায় ততই সে চায় / অসীম মানব প্রাণ অসীমের মাঝে তাই সে সীমার সন্ধান ।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x
error: Content is protected !!